Breaking News

সম্পর্কের কুলের আচার, দেখেছেন?

বিয়ের পর স্বামীর পদবি ব্যবহার করাই ভারতীয় মহিলাদের প্রথা। কিন্তু কালের নিয়মে সমাজ যত উন্নত হয়েছে ততই ধীরে ধীরে বদলেছে কিছু চিরাচরিত নিয়ম। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য মেয়েদের বিয়ের পর পদবি বদল।

আইন অনুযায়ী পদবি বদল বাধ্যতামূলক না হলেও সমাজের কিছু স্তরে, কিছু পরিবারের মননে তা এখনও বাধ্যতামূলকই রয়ে গেছে। তাহলে একটা মেয়ের পদবিই কি তাঁর পরিচয়? সেই প্রশ্নই তুলেছেন মধুমিতা সরকার(Madhumita Sarcar) ও ইন্দ্রানী হালদার(Madhumita Sarcar)।

একজন মহিলার বিয়ের আগের পদবি ব্যবহারের ইচ্ছা এবং তাকে ঘিরে তৈরি হওয়া বিভিন্ন জটিলতার গল্প ‘কুলের আচার’। যাঁর পদবি ঘিরে এত মুশকিল,সেই চরিত্রে মধুমিতা সরকার। তাঁর স্বামী প্রীতমের ভূমিকায় দেখা যাবে বিক্রম চট্টোপাধ্যায়কে(Vikram chatterjee)।

প্রথমবার পর্দায় একসঙ্গে দেখা যাবে মধুমিতা ও বিক্রমকে। মধুমিতার থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই নিজের পদবি ফিরে পেতে মরিয়া হয়ে ওঠে তাঁর শাশুড়ি। বিক্রমের বাবার চরিত্রে রয়েছেন নীল সুজন মুখোপাধ্যায় ও মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইন্দ্রানী হালদার।

পারিবারিক এই ছবিটি লিখেছেন ও পরিচালনা করেছেন সুদীপ দাস। এই ছবিতে SVF-এর সঙ্গে প্রথমবার কাজ করবেন তিনি। ‘কুলের আচার’-এর ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করছেন মৈনাক ভৌমিক(Mainak Bhaumik)। প্রায় পাঁচ বছর পরে আবার বড় পর্দায় দেখা যাবে ইন্দ্রাণী হালদারকে(Indrani Haldar)। এই সিনেমায় বিভিন্ন গানে সুর দিয়েছে ‘প্রসেনের দলবল’।আগামী ১৫ জুলাই বড়পর্দায় মুক্তি পেতে চলেছে ‘কুলের আচার’।

About Desk Five

Check Also

‘আমার সব বান্ধবীর সঙ্গেই ভাই শুয়েছে’, অর্জুনকে নিয়ে বেঁফাস সোনম!

মুখে কোনও লাগাম নেই। ফের বেফাঁস সোনম কাপুর। বয়ফ্রেন্ড কিংবা স্বামী নয়, ভাই অর্জুন কাপুরের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.